সর্বশেষ আপডেট
লাইভ শোতে ২ সৌদি সমকামি তরুণীর ভালোবাসা প্রকাশ! হঠাৎ মোটা হওয়ার কারণ জানালেন বুবলী ঝুড়িতে পাওয়া গেল কন্যা শি’শু, নাম দেওয়া হল ‘একুশে’ জরুরী আবহাওয়া বিজ্ঞপ্তিঃ সোমবার থেকে বৃষ্টি, চলবে তিনদিন! সুন্দরীর বিয়ের ফাঁদ, অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, এরপর বেরিয়ে আসল চাঞ্চল্যকর তথ্য… বাসে বাবার বয়সী ব্যক্তির যৌ’ন হয়’রানি, কেঁদে বিচার চাইলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে বাংলাদেশি প্রবাসী আ’ক্রা’ন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কোরআন ছুঁয়ে শপথ নিলেন পুলিশ কর্মকর্তা গর্ভবতী হওয়া নিয়ে এবার মুখ খুললেন নায়িকা বুবলী, জেনে নিন নায়িকার স্বীকারুক্তি… কুমিল্লায় কয়েক হাজার কোটি টাকা নিয়ে শতাধিক কোম্পানি উধাও
প্রথমবারের মত সৌদি আরবে যেভাবে পালিত হল ভালোবাসা দিবস

প্রথমবারের মত সৌদি আরবে যেভাবে পালিত হল ভালোবাসা দিবস

দুই বছর আগেও পরিস্থিতি ছিল অন্যরকম। ভালোবাসা দিবসে দোকানে লালফুল বিক্রি ছিল নিষিদ্ধ। সেই রক্ষণশীল সৌদি আরবে এ বছর প্রথমবারে মতো বৈধভাবে পালিত হচ্ছে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস! সৌদিতে ১৪ ফেব্রুয়ারিকে এতদিন খ্রিষ্টানদের সাধারণ ছুটির দিন মনে করা হতো। একই সঙ্গে ভালোবাসা উদ্‌যাপনকে বল হতো ‘অনৈসলামিক’। এই ধারণা বদলানোর চেষ্টা করছেন দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

পরিস্থিতি এতটাই পাল্টেছে যে দেশটির জাতীয় দৈনিক আরব নিউজ ভালোবাসা দিবসের ‘টিপস’ বিষয়ক ফিচার ছাপার পর্যন্ত ‘সাহস’ দেখিয়েছে। ‘এই দিনে আগে কখনো মানুষকে লাল কিছু পরতে দেখা যায়নি,’ জানিয়ে রানিয়া হাসান নামের রিয়াদের এক নারী পত্রিকাটিকে বলেন, ‘মানুষ ভুল করে লাল পোশাক পরলেও ধর্মীয় পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে যেত!’ সৌদি আরবে শুধু এসবেই পরিবর্তন আসেনি,

বেড়েছে নারী অধিকারও। দেশটির নারীরা এখন গাড়ি চালাতে পারেন। মাঠে গিয়ে খেলা দেখতে পারেন। যা কয়েক বছর আগেও ছিল অবিশ্বাস্য। এ বছর ভালোবাসা দিবসে কয়েকটি রেস্তোরাঁ বিশেষ সাজে সেজেছে। চাহিদামতো তারা পার্টির ব্যবস্থাও করে দিচ্ছে। ফুলবিক্রেতা ফয়সাল আল-হামাদি আল-আরবিয়ার ইংলিশ সংস্করণকে বলেন, ‘অন্যবারের তুলনায় এবার পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। বিক্রি কয়েক গুণ বেড়েছে।’

আজকের আলোচিত খবর… বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় মুসলিম নেতা এরদোগান। বিশ্বের সকল রাজনৈতিক নেতাদের জনপ্রিয়তা নিয়ে একটি জরিপ করেছে একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা। এতে সবচেয়ে জনপ্রিয় মুসলিম নেতা হিসেবে সূচকে এগিয়ে রয়েছেন তুরস্কের
প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। বিশ্বের পঞ্চম জনপ্রিয় নেতা হলেন তিনি। বিশ্বের মুসলমানদের মধ্যে এরদোগানের যেখানে ৩০ শতাংশ,

সেখানে সৌদি সালমান বিন আবদুল আজিজের ২৫ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। আর ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির জনপ্রিয়তা ২১ শতাংশ।
জরিপে দেখা গেছে, জার্মানির চ্যান্সেলর অঞ্জেলা মেরকেলের ৪৬ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। তারপরেই রয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। তার জনপ্রিয়তা ৪০ শতাংশ।এছাড়া রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ৩৬ শতাংশ, ট্রাম্পের ৩১ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের পরেই ৩০ শতাংশ জনপ্রিয়তা নিয়ে পঞ্চম স্থানে তুরস্কের এরদোগান। ১৯৭৭ সালে ডা. জর্জ গ্যালাপ প্রথম জনপ্রিয়তার এই সূচক নির্ণয় শুরু করেন। এরপর প্রতিবছরই শেষের দিকে গ্যালাপ ইন্টারন্যাশনাল এন্ড অফ ইয়ার সার্ভেই প্রকাশ করা হচ্ছে। চলতি বছরে বিশ্বের ৫০টি দেশে এই জরিপ করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী পঞ্চাশ হাজার ২৬১ জন জরিপে অংশ নিয়েছেন। প্রতিটি দেশ থেকে এক হাজার নারী-পুরুষ এই জরিপে প্রতিনিধিত্ব করেন। নভেম্বর ও ডিসেম্বরে মুখোমুখি, টেলিফোন ও অনলাইনে তারা ভোট দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme