সর্বশেষ আপডেট
লাইভ শোতে ২ সৌদি সমকামি তরুণীর ভালোবাসা প্রকাশ! হঠাৎ মোটা হওয়ার কারণ জানালেন বুবলী ঝুড়িতে পাওয়া গেল কন্যা শি’শু, নাম দেওয়া হল ‘একুশে’ জরুরী আবহাওয়া বিজ্ঞপ্তিঃ সোমবার থেকে বৃষ্টি, চলবে তিনদিন! সুন্দরীর বিয়ের ফাঁদ, অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, এরপর বেরিয়ে আসল চাঞ্চল্যকর তথ্য… বাসে বাবার বয়সী ব্যক্তির যৌ’ন হয়’রানি, কেঁদে বিচার চাইলেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে বাংলাদেশি প্রবাসী আ’ক্রা’ন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কোরআন ছুঁয়ে শপথ নিলেন পুলিশ কর্মকর্তা গর্ভবতী হওয়া নিয়ে এবার মুখ খুললেন নায়িকা বুবলী, জেনে নিন নায়িকার স্বীকারুক্তি… কুমিল্লায় কয়েক হাজার কোটি টাকা নিয়ে শতাধিক কোম্পানি উধাও
মসজিদুল আকসায় হস্তক্ষেপকারীদের হাত ভেঙ্গে দেয়া হবে: এরদোগান !!

মসজিদুল আকসায় হস্তক্ষেপকারীদের হাত ভেঙ্গে দেয়া হবে: এরদোগান !!

মুসলমানদের এক সময়ের পবিত্র কিবলা মসজিদুল আকসাকে ‘রে’ড লাইন’ আখ্যা দিয়ে তার উপর হ’স্তক্ষেপ কারীদের হাত ভে’ঙ্গে দেয়ার হু’মকি দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রাসেপ তাইয়েপ এরদোগান। এরদোগান বলেন, যেকোনো পরিস্থিতিতে তুর্কিরা পূন্যময়ী নগরী আল কুদস ও পবিত্র মসজিদ আল আকসাকে ধারণ করে বাঁচতে চায়, তুরস্ক সবসময় ফিলিস্তিনের পাশেই থাকবে। গত শুক্রবার আঙ্কারায় ক্ষমতাসীন দল জাস্টিস

অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির (একেপি) কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে বক্তৃতা দেয়ার সময় তিনি এই হুশিয়ারি ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তথাকথিত শতাব্দীর সেরা চু’ক্তি আমাদের নিকট অগ্রহণযোগ্য। ই’সরায়েল তো একটি অবৈধ রাষ্ট্র, মুসলমানদের পবিত্র মসজিদ আল আকসার ওপর যে-ই হাত বাড়াবে তার হাত আমরা ভে’ঙে ফেলব। এরদোগান আরও বলেন,

শতাব্দীর সেরা চুক্তির মাধ্যমে আমেরিকার প্রধান লক্ষ্য পূন্যময়ী নগরী আল কুদসকে (জেরুসালেম) গ্রাস করে নেয়া- আমরা কিছুতেই এটা মেনে নিব না। তথাকথিত শতাব্দীর সেরা চু’ক্তির ব্যাপারে আরব ইসলামি রাষ্ট্রসমূহের ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করেছেন মুসলিম বিশ্বের প্র’ভাবশালী এই নেতা। ‘ট্রা’ম্পের মুসলিম বি’রোধী চুক্তির বিপক্ষে সৌদি আরব এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ নেয়নি,

কখন আমরা তাদের আও’য়াজ শুনতে পারব’ প্রশ্ন ছুড়েছেন এরদোগান।‘যেসব ‘বি’শ্বাসঘাতক আরব হাত’ ট্রাম্পের ফিলিস্তিনি বিনাশী ওই চুক্তির সমর্থন করেছে, তাদেরও হিসেব দিতে হবে, ‘যখন আল কুদসের ওকবৃক্ষ ভে’ঙে পড়বে তখন গোটা বিশ্বই ভে’ঙে পড়বে,আমরা কিছুতেই স’ন্ত্রাসবাদী ইসরায়েলের হাতে তা অর্পণ করতে পারিনা। ফিলিস্তিনিরা তাদের জন্মভূমি ছেড়ে অন্যকোথাও বিতাড়িত হবে- এটাও মেনে নেব না।’

আজকের আলোচিত খবর… আসামে মাদ্রাসা বন্ধ করে দিচ্ছে বিজেপি সরকার। ভারতের আসাম রাজ্যে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে মাদ্রাসা ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র’গুলো। রাজ্যের বিজেপি সরকার আগামী ছয় মাসের মধ্যে সরকারি অর্থায়নে পরিচালিত মুসলিমদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান’গুলোকে সাধারণ বিদ্যালয়ে রূ’পান্তরিত করবে বলে জানা গেছে। দশকের পর দশক ধরে চলে আসা ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এভাবে ব’ন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করছে ভারতের নাগরিক সমাজ।

বৃহস্পতিবার আসামের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এ খবর দিয়েছে। তবে শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিজেপি সরকারের এই সিদ্ধান্তের সাফাই গেয়ে বলেন, ধ’র্ম, ধর্মগ্রন্থ এবং আরবির মতো ভাষা শিশুদের শেখানো কোনো ধর্ম’নিরপেক্ষ সরকারের কাজ নয়। সংবাদমাধ্যম বলছে, ২০১৭ সালে মাদ্রাসার পাশাপাশি সংস্কৃতি কেন্দ্র বোর্ডকে মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সঙ্গে একীভূত করা হয়েছিল।

এবার তা পুরোপুরি বন্ধই করে দিচ্ছে বিজেপি সরকার। শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বলেন, এখানে কোনো স্বতন্ত্র বোর্ড ছাড়া প্রায় ১২০০ মাদরাসা ও ২০০ সংস্কৃতি চলছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীরাও ম্যা’ট্রিকুলেশন বা উচ্চ মাধ্যমিকের সমমানের সনদ পায় বলে অনেক সমস্যার তৈরি হয়। সেজন্য আমরা এসব মাদরাসা ও সংস্কৃতি কেন্দ্রকে সাধারণ বিদ্যালয়ে রূপান্তর করছি।

আর এ রাজ্যে যে ২ হাজার বেসরকারি মাদ্রাসা আছে, সেগুলোকেও ক’ড়া নিয়ম-কানুনের আওতায় আনা হবে বলে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।
মাদরাসা বন্ধে বিজেপি সরকারের এ সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা চলছে আসামসহ ভারতের বিভিন্ন পরিসরে। সেখানকার সংখ্যা’লঘু সম্প্রদায়ের অধিকার সংগঠনগুলো বলছে, মুসলিম-বি’দ্বেষী মানসিকতা থেকেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মদ্রাসা বন্ধের আগে মুসলিম সংখ্যা’লঘুদে বিতাড়িত করার উদ্দেশ্য থেকে রোজ্যটিতে বিতর্কিত নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) প্রকাশ করা হয়।

আসাম হচ্ছে ভারতের প্রথম রাজ্য যেখানে এনআরসি তালিকা করা হয়েছে। এই তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পর ভারত জুড়ে সমালোচিত হয়ে আসছে মোদি সরকার। এর মধ্যেই তারা গত বছরের শেষ নাগাদ বি’তর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাস করেছে, যা নিয়ে এখনও ভারতের বিভিন্ন স্থানে চলছে বি’ক্ষোভ। প্রসঙ্গত, গত ৩০ আগস্ট আসামের চূ’ড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশিত হওয়ার পর দেখা যায় এ থেকে বাদ পড়েছে ১৯ লাখের বেশি মানুষ। এদের মধ্যে বাঙালি মুসলিম হিন্দু’র সংখ্যাই বেশি।-বার্তাবাজার

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme