চার ধ’র্ষ’কে’র ফাঁ’সি দিয়ে যত টাকা পাবেন জ’ল্লা’দ পবন

চার ধ’র্ষ’কে’র ফাঁ’সি দিয়ে যত টাকা পাবেন জ’ল্লা’দ পবন

ভারতের দিল্লিতে নি’র্ভয়াকে ধ’র্ষণ ও হ’ত্যাকা’ণ্ডের দায়ে সা’জা পাওয়া চার ধ’র্ষককে ফাঁ’সি দেয়ার বিনিময়ে পাওয়া অর্থ দিয়ে মেয়ের বিয়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন পবন (৫৭) নামের এক জ’ল্লাদ। বর্তমানে ওই চারজন উত্তর প্রদেশ রাজ্যের একটি কা’রাগারে ব’ন্দি রয়েছেন। জ’ল্লাদ পবন বলেন, আমি যদি চার ধ’র্ষককে ফাঁ’সিতে ঝো’লাই, তাহলে সরকার আমাকে ১ লাখ রুপি পুরস্কার দেবে। মেয়ের বিয়ে দেওয়ার জন্য আমার এই অ’র্থের দরকার।

মাসের পর মাস ধরে আমি এই সুযোগের অপেক্ষায় ছিলাম।আগামী ২২ জানুয়ারি চার অপরা’ধীকে ফাঁ’সির আ’দেশ দিয়েছেন ভারতের আদালত। এ নিয়ে বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন পবন।তিনি বলেন, তারা (কর্মকর্তা) আমাকে বলেছে যেকোনো দিন আমাকে তিহারে নিয়ে যাওয়া হবে। হতে পারে সেটা পরশু বা তারপর। ফাঁ’সিটা যেন সুষ্ঠুভাবে হয় সেজন্য রিহার্সালের প্রয়োজন রয়েছে। তাই আমাকে কিছুটা আগেই সেখানে যেতে হবে। বার্তা সংস্থা আইএএনএস জানায়, পবন তার পরিবারের চতুর্থ প্রজন্মের জ’ল্লাদ।

এর আগেও তার পূর্বপুরুষরা একই কাজ করেছেন। উত্তর প্রদেশের কারা কর্তৃপক্ষ তাকে প্রতি মাসে ৫ হাজার টাকা বেতন দেয়। এর পাশাপাশি আর কোনো আয়ও নেই তার। কোনো অপরাধীকে ফাঁ’সিতে ঝো’লালেই আলাদাভাবে কিছু অর্থ তার হাতে আসে। এ কারণেই মেয়ের বিয়ের অর্থ সংস্থান নিয়ে বেশ চিন্তিত ছিলেন তিনি। জানা গেছে, প্রতিটি ফাঁ’সির জন্য জল্লাদকে ২৫ হাজার রুপি পুরস্কার দেয় ভারত সরকার। ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লিতে চলন্ত বাসে ২৩ বছরের তরুণী নি’র্ভয়াকে গণধ’র্ষণ করে কয়েক ব্যক্তি।

গণধ’র্ষণের পর বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয় তাকে।২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে নির্ভয়াকে গণধ’র্ষণ করে হ’ত্যার দায়ে ছয় আসা’মির মধ্যে চারজনের ফাঁ’সির আদেশ দেয় দিল্লির ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট। ২০১৪ সালে দিল্লি হাইকোর্ট চারজনের ফাঁ’সির আদেশ বহাল রাখে। ২০১৭ সালে সেই রায় পুনর্বিবেচনা করে দেখতে আদালতে আর্জি জানিয়েছিল অন্যতম অভিযুক্ত অক্ষ’য় ঠাকুর সিং। তবে সেই আবেদন খা’রিজ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme