সর্বশেষ আপডেট
বাইক হাঁকিয়ে নারীর ইয়াবা ব্যবসা, পরিচয় দিতেন সাংবাদিক ।

বাইক হাঁকিয়ে নারীর ইয়াবা ব্যবসা, পরিচয় দিতেন সাংবাদিক ।

যশোরে কখনো সাংবাদিক, আবার কখনো পুলিশ পরিচয়ে প্র’তারণা ও মা’দক বিক্রির অ’ভিযোগে চার সহযোগীসহ রেহেনা ওরফে লিপি (২৫) নামে এক নারীকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ।এ সময় পুলিশের পোশাক, হ্যান্ডকাফ, ওয়াকিটকি রেহেনার কিছু ছবি জ’ব্দ করা হয়েছে। বুধবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে যশোর জিলা স্কুলের সামনে থেকে তাদের গ্রে’ফতার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ।

গ্রে’ফতার রেহেনা চৌগাছা উপজেলার মাশিলা নারায়ণপুর গ্রামের মিঠুর স্ত্রী। তিনি নিজেকে সাপ্তাহিক স্মৃতি পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে দাবি করেন।গ্রে’ফতার অপর চারজন হলেন, যশোর শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া বিল্লা মসজিদ রোডের পিয়া (২০), শংকরপুর সরকারি মুরগির খামার এলাকার সোহেল (১৯), রেলরোডের রেলবাজার এলাকার বিসমিল্লাহ সেলুনের পেছনের বাসিন্দা বাবু ও আশ্রম রোডের সাহেব বাবুর বাড়ির সামনের বাসিন্দা তুহিন।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে, মোটরসাইকেলের সামনে ‘প্রেস’ লিখে শহরময় ঘুরে বেড়ান এক নারী।সাংবাদিক পরিচয়ে তিনি শহরের বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা বিক্রি করে আসছিলেন। তাকে গ্রে’ফতার করার জন্য কয়েকদিন ধরেই নজরে রাখা হয়েছিল।পরে বুধবার বিকেলে যশোর জিলা স্কুলের সামনে ওই নারীর সঙ্গীরা অবস্থান করছে জানতে পেরে তার চার সহযোগীকে গ্রে’ফতার করে পুলিশ।

এ সময় সোহেলের কাছে একটি ওয়াকিটকি পাওয়া যায়। ওয়াকিটকিটি সে ‘সাংবাদিক’ পরিচয়ধারী রেহেনা ওরফে লিপির কাছ থেকে পেয়েছে বলে পুলিশকে জানায়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রেহেনাকে গ্রে’ফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে রেহেনা জানান, তিনি একটি অনলাইন শপ থেকে ওয়াকিটকি সেটটি কিনেছেন। ওয়াকিটকি দেখিয়ে পুলিশ পরিচয় দিয়ে প্র’তারণা করে আসছিলেন তিনি স্বীকার করেছেন। তাদের বি’রুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]