সর্বশেষ আপডেট
প্রেমিককে পেতে কনকনে শীতে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসলো ১৪ বছরের কিশোরী । আমাদের নিয়ে আযহারী হুজুর ছাড়া আর কেউ এমন কথা বলেনিঃ হিজড়া প্রধান । প্রভাকে বিয়ে করলেন ইন্তেখাব দিনার । বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শী’র্ষে বাংলাদেশি পুরু’ষরা । আজ ১৯/০১/২০২০ তারিখ, দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত । দেহ ব্যবসা করতে করতে যেভাবে আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন হলেন আলিয়া । শারীরিক সম্পর্কে মোটা পুরুষেরা বেশি সক্রিয়, বলছে গবেষণা । ওয়াজে তারেক মনোয়ারের বক্তব্য নিয়ে ফেসবুকে তুমুল আলোচনা । পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে হোটেলে গিয়ে যেভাবে খু’ন করা হল গৃহবধূকে । ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে হচ্ছেনা এসএসসি পরীক্ষা ।
শা’রী’রিক সম্প’র্কের পর বিয়ের জন্য চা’প দেয়ায় প্রবাসীর স্ত্রী ও সন্তানকে হ’ত্যা

শা’রী’রিক সম্প’র্কের পর বিয়ের জন্য চা’প দেয়ায় প্রবাসীর স্ত্রী ও সন্তানকে হ’ত্যা

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় পারভীন আক্তার ও তার শিশুপুত্র খু’নের ঘ’ট’নায় পারভীনের দেবর সোলাইমান হোসেন আদালতে স্বী’কা’রো’ক্তি’মূল’ক জ’বানব’ন্দি দিয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। খবর ইউ’এ’নবি’র।গত বুধবার গ’ভীর রাতে সাটুরিয়ার উত্তর কাউন্নারা গ্রামের সৌদি প্রবাসি মজনু মিয়ার স্ত্রী পারভীন আক্তার ও তার ছয় বছরের ছেলে নুর হোসেন তাদের দুতলা ফ্ল্যা’ট বাসায় খু’ন হন। সকালে পু’লিশ তাদের র’ক্তাক্ত ম’রদেহ উ’দ্ধার করে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সিনিয়র জু’ডি’শি’য়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৯ এর বি’চা’র’ক জান্নাতুল রাফিন সুলতানের কাছে সোলাইমান হোসেন ১৬৪ ধা’রায় জবা’নব’ন্দি দেন। পরে সোলাইমানকে রাতেই আ’দা’ল’ত থেকে জেলা কা’রা’গা’রে পাঠানো হয়।মানিকগঞ্জ জেলা পু’লি’শ সুপার রিফাত রহমান শামীম এক প্রে’স বি’জ্ঞপ্তিতে জানান, ১৬৪ ধা’রা জ’বা’নব’ন্দিতে সোলাইমান হোসেন খু’নের কথা স্বী’কার করেছেন।

স্বী’কা’রো’ক্তি অনুয়ায়ী সোলাইমান হোসেনের সাথে তার মেঝ ভাই মজনু মিয়ার স্ত্রী পারভীনের প’র’কী’য়ার সম্পর্ক তৈরি হয়। তিন মাস আগে সোলাইমান মালয়েশিয়া থেকে পড়াশুনা করে দেশে আসেন। এরপর পারভীনের সাথে পরকী’য়ার স’ম্প’র্ক আরও গ’ভী’র হয়। প্রে’স বি’জ্ঞ’প্তি’তে বলা হয়, পারভীন সোলাইমানকে বিয়ের জন্য চা’প দেয়। ঘটনার দিন রাত ১০টার দিকে সোলাইমান হোসেন পারভীনের ঘরে প্রবেশ করে।

তাদের মধ্যে দৈ’হিক সম্প’র্কের এক পর্যায়ে পারভীন আক্তার সোলাইমানকে বিয়ের জন্য চা’প প্র’য়ো’গ করে।সোলাইমান দুই ভাতিজা আব্দুল করিম (১০) ও আব্দুল নুরের (৬) কথা চি’ন্তা করে বিয়ের জন্য রা’জি হননি। বিয়েতে রা’জি না হওয়াতে পারভীন আক্তার তার নিজের দুই ছেলে, স্বামী ও সোলাইমানকে হ’ত্যার হু’মকি দেন। এ নিয়ে দুইজনের ম’ধ্যে কথা কা’টাকা’টি হয়। এসময় সোলাইমান ঘ’রে থাকা ধা’রাল চা’কু দিয়ে পারভীনের গ’লায় আ’ঘা’ত করেন।

ভাতিজা আব্দুল নুর জেগে উঠলে তাকেও চা’কু দিয়ে হ’ত্যা করে সোলাইমান এবং র’ক্তমাখা চা’কু ও তার পরি’হিত কাপড় ধুয়ে নিজ ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। তবে সোলাইমানের বাবা ক্বারী আব্দুল রহমান দাবি করেন, পুলিশ সোলাইমানকে ফাঁ’সানোর জন্য ধ’রে নিয়ে গেছে। ‘তার সাথে আমার পরিবারের কাউকে দেখা করতে দেয় না,’ বলেন তিনি।বাড়িতে ব’হি’রা’গ’ত কেই আসে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘মাঝে ম’ধ্যে অ’পরিচিত এ’কা’ধি’ক ছেলে আসত বৌমার কাছে।

কিন্তু তাদের আমি চিনি না।’ তবে ক্বারী আব্দুল রহমানের স্ত্রী রোমেনা বেগম বলেন, ‘আমার ছেলের বৌ প’র্দা করে থাকত। সে হাত পায়ে মোজা পরে বাইরে বের হত। আত্মীয়-স্বজন ছাড়া আমার বাড়িতে কেউ আসত না।’ মা’ম’লা’র ত’দ’ন্ত’কা’রী কর্মকর্তা ওসি (ত’দন্ত) আবুল কালাম বলেন, সাটুরিয়াতে মা-ছেলে খু’নের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বিভিন্ন সো’র্সের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায় হ’ত্যাকা’ণ্ডের সাথে সোলাইমান জ’ড়ি’ত। তাকে বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রে’প্তার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসবাদে সোলাইমান হ’ত্যাকা’ণ্ডের সাথে জ’ড়ি’ত বলে পু’লি’শে’র কাছে স্বী’কা’র করেন।শুক্রবার দুপুরে তাকে আ’দা’ল’তে তোলা হলে তিনি ১৬৪ ধা’রা’য় স্বী’কারোক্তিমূলক জবা’নব’ন্দি দিয়েছেন। এই ঘ’ট’না’য় নি’হত পারভীনের মা মজিরন বেগম বা’দী হয়ে একটি হ’ত্যা মা’ম’লা দা’য়ের করেন বলে জানান তিনি।এদিকে সাটুরিয়া থানা পু’লি’শ জো’ড়া খু’নের আ’লা’ম’ত সং’গ্র’হ করেছে। বৃহস্পতিবার রাতে মা ও ছেলেকে পা’রি’বা’রিক ক’বর’স্থা’নে দা’ফন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme