সর্বশেষ আপডেট
মেডিকেলে চান্স পেলো রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা কলেজে না গিয়েও এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় নেহা । বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসা করে যা বললেন মালয়েশিয়ার পুলিশপ্রধান । বাড়ির নিচতলায় গাড়ী চালকদের জন্য থাকা ও নামাজের ব্যবস্থা করতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী । প্রেমের টানে বাংলাদেশে ভারতীয় গৃহবধূ, সীমান্তে উত্তে’জনা । গোয়ালঘরে শিকলে বাঁধা বৃদ্ধা মা বললেন, মোর পোলারা ভালো । সাড়ে ৮ লাখ টাকা দিয়েও চাকরি হয়নি, কাঁদলেন প্রার্থী । গরু ছেড়ে নারীদের প্রতি বেশি যত্নবান হোনঃ মোদিকে এক নারী । যে কারণে তুহিনকে নি’র্মমভাবে হ’ত্যা করলেন বাবা । পিয়ন থেকে যেভাবে ১২০০ কোটি টাকার মালিক যুবলীগের আনিস ।
ধে’য়ে আ’সছে সুপার টাইফুন হাজিবিস

ধে’য়ে আ’সছে সুপার টাইফুন হাজিবিস

জাপানের টোকিও উপকূলে আ’ঘাত হা’নতে যা’চ্ছে হাজিবিস। ১৯৫৮ সালের পর থেকে সবচেয়ে শ’ক্তিশালী হিসেবে ধ’রা হ’চ্ছে আসন্ন এ ঘূ’র্ণিঝড়কে। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) ‘স্পুটনিক নিউজ’ জাপানের আবহাওয়া অধিদপ্তরের বরাত দিয়ে এই খবর প্র’কাশ ক’রেছে।

খবরে বলা হয়, সুপার টাইফুন হাজিবিস টোকিওর দিকে ধে’য়ে আসছে। যেকোনো মু’হূর্তে টোকিও উপকূলে আ’ঘাত হা’নতে পারে এটি। টাইফুন হাজিবিসের কা’রণে সম্ভাব্য ক্ষ’য়ক্ষ’তি এড়াতে প্রশাসন বিভিন্ন প’দক্ষেপ নিয়েছে। ইতিমধ্যে বাতিল ক’রা হয়েছে জাপানে চলমান রাগবি বিশ্বকাপের কয়েকটি ম্যাচ।

এছাড়া, টোকিওর নারিতা বিমানবন্দর থেকে সকল আভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বা’তিল ঘো’ষণা করা হয়েছে। ব’ন্ধ রা’খা হয়েছে বৃহত্তর টোকিওর সব রেল যোগাযোগ। এই সুপার টাইফুনটি এই সপ্তাহান্তেই আ’ঘাত হা’নার কথা রয়েছে।

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে প্রবল বেগে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় ‘হিক্কা’ আছড়ে পড়তে পারে বলে জানা গেছে। আর এই ‘হিক্কার’ প্রভাব বৃহস্পতিবার পর্যন্ত থাকবে বলে অনুমান করছে আবহাওয়াবিদরা।

স্থানীয় আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ, গুজরাট ও তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকায় আছড়ে পড়তে পারে এই ঝড়। ঘূর্ণিঝড়টি ভারতে আ’ঘাত হানলে তার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আবহাওয়া অফিস আরও জানিয়েছে

, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আরব সাগরে থেকে ধেয়ে আসতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় হিক্কা। ঝড়ের প্রভাবে বুধবার সকাল থেকেই শুরু হতে পারে বৃষ্টি। আর এই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় হিক্কার প্রভাব বৃহস্পতিবার পর্যন্ত থাকবে বলেই আবহাওয়াবিদদের অনুমান।

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, ঘূর্ণিঝড় হিক্কার প্রভাবে ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড় ধেয়ে আসতে চলেছে গুজরাটের উপকূলবর্তী অঞ্চলে। গুজরাটের ভেরাভাল, পাকিস্তানের করাচির ৪৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং ওমানের মাসিরাহের ৭৬০ কিলোমিটার পূর্ব-দক্ষিণ পূর্ব সীমান্তেই হতে চলেছে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি।

কেবল ভারত নয়, আগামী বুধবার ওমানের উপকূলবর্তী অঞ্চলেও আছড়ে পড়তে পারে হিক্কা ঘূর্ণিঝড়। হিক্কার প্রভাবে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে বড় ধরনের ক্ষয়-ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আবহাওয়াবিদদের দাবি, ওমানে ঘণ্টায় ১৭ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে এই ঝড়। ওমানে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত হিক্কার প্রভাব বহাল থাকবে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। হিক্কার কারণে ইতোমধ্যেই ভারতীয় জেলেদের গভীর সমুদ্রে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রশাসন সতর্ক রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। ইতোমধ্যেই সমুদ্র তীরবর্তী এলাকার বাসিন্দাদেরও অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

ভারতের দিকে ধেয়ে আসছে প্রবল ঘূর্ণিঝড় হিক্কা। এর ফলে ঝড়ের পাশাপাশি ভারী থেকে অ’তিভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে অন্ধ্রপ্রদেশ, গুজরাট, তেলেঙ্গানার বিভিন্ন এলাকায়। ভারতের আহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আরব সাগরে ধেয়ে আসতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় হিক্কা। পূর্বাভাস অনুযায়ী, বুধবার সকাল থেকেই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে শুরু হতে পারে ঝড়বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত হিক্কার প্রভাব থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় হিক্কার প্রভাবে ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড় ধেয়ে আসতে চলেছে গুজরাটের উপকূলবর্তী অঞ্চলে। গুজরাটের ভেরাভাল, পাকিস্তানের করাচির ৪৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং ওমানের মাসিরাহের ৭৬০ কিলোমিটার পূর্ব-দক্ষিণ পূর্ব সীমান্তে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ভারী থেকে অ’তিভারী বৃষ্টিপাত হবে।

আগামী বুধবার ওমানে হিক্কার প্রভাবে বড় ধরনের ক্ষয়-ক্ষতির আশ’ঙ্কা করা হচ্ছে। আবহাওয়াবিদদের দাবি, ওমানে ঘণ্টায় ১৭ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে এই ঝড়। ২৫ সেপ্টেম্বর সকালের দিকেই ওমানের উপকূলবর্তী অঞ্চলে আছড়ে পড়তে পারে হিক্কা।

ইতোমধ্যেই মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রশাসন সতর্ক রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। ইতোমধ্যেই সমুদ্র তীরবর্তী এলাকার বাসিন্দাদেরও অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]